সম্প্রতি এবার এ ঘটনাটি ঘটেছে রংপুর নগরীর সাহেবগঞ্জ এলাকায়। স্বামী বাড়িতে না থাকার সুযোগে মধ্যরাতে এক গৃহবধূর সাথে /অ/নৈ/তি//ক/ কা/জে /লী//প্ত/ হওয়ার অভিযোগ ওঠেছে একই এলাকার মোরশেদুল নামে এক যুবকের বি/রু/দ্ধে। এছাড়া এ ঘটনার দায়ে মোরশেদুলকে /আ/সা/মি করে একটি /মা//ম/লা/ দায়ের করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।
এদিকে এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা যায়, রংপুর নগরীর সাহেবগঞ্জ এলাকার এক দিনমজুরের স্ত্রীকে কয়ে/কদি/ন ধ/রে /উ//ত্ত্য///ক্ত// করে আসছিল /ব//খা/টে মোরশে/দুল। বুধবার রা/তে বাড়ির পা/র্শ্বে /এক /ব্য/ক্তি /মা///রা// যা/ওয়ায় ওই /গৃহব/ধূর স্বা/মীস/হ বাড়ির লোকজন সেখানে/ যান। এই সুযোগে বাড়িতে একা পেয়ে ওই গৃহ/বধূর ঘ/রে ঢুকে এমনই ঘটনা ঘটান মোরশেদুল।

রাত তিনটার দিকে ভুক্তভোগী নারীর দেবর বাড়িতে ঢুকে দরজার ফাঁক দিয়ে/ মোরশেদুলকে দেখতে পান। প/রে তিনি এগিয়ে গেলে মোরশেদুল তাকে /ধা//ক্কা/ দিয়ে জানালা দিয়ে পালিয়ে যান। বৃহস্প/তি/বার সকালে ওই নারীর স্বামী বা/দী হয়ে মোরশেদুলের বিরুদ্ধে হা/রা/গাছ থা/নায় মা//ম//লা দায়ে/র করেন।


এ ঘটনায় হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা( ওসি) রেজাউল করিম জানান, অভিযুক্ত মোরশেদু/লকে /আ/সা/মি করে ইতিমধ্যে থানায় একটি ///মা/ম//লা/ দায়ের করা হয়ে/ছে। আর এ /মা/ম/লা/র আ/লোকে তাকে আটক ক/রার সবরকম চেষ্টা করা হচ্ছে। এ সময়ে তিনি /আরও বলেন, এ ঘটনার শিকার হওয়া ঐ গৃহবধুকে পরীক্ষা/র জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।