বিটাউনের অন্যতম জনপ্রিয় গুণী অভিনেত্রী দিয়া মির্জা। সম্প্রতি কিছুদিন পূর্বেই পরিবার-পরিজনদের সম্মতিতেই বৈভব রেখি নামে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। তবে ভক্তদের অনুমান অনুয়ায়ি বিয়েতে তেমন কোনো জামজমক পরিবেশ লক্ষ করা যায়নি। জানা যায়, সাদামাটা পরিবেশের মধ্যদিয়েই বিয়ের কাজ সেরেছেন বলিউডের সুপার স্টার এই অভিনেত্রী।

বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে হানিমুনে গিয়েছেন ৩৯ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী। মালদ্বীপে মধুচন্দিমা করছেন তারা। সেখানের একাধিক ছবি শেয়ার করেছেন নিজের ইনস্টাগ্রামে।

শেয়ার করা ছবিতে সাদা পোশাকের সঙ্গে মাথায় গ্রীষ্মের টুপি পরা দেখা গেছে তাকে। শেয়ার করা ছবির ক্যাপশন থেকে জানা গেছে, তপ্ত রোদে নির্জন দ্বীপে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন এ অভিনেত্রী। তার সেই ছবি তুলেছেন স্বামী বৈভব রেখি।

শেয়ার একটি ছবিতে চোখ আটকে গেছে নেটিজেনদের। সেখানে দেখা গেছে সৎ মেয়ে সামাইরার সঙ্গেও পোজ দিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন দিয়া। ছবির কমেন্টস বক্সে অনেকেই ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন। সৎ মেয়ে নিয়ে মধুচন্দ্রিমা যাওয়ার বিষয়টি ভালো ভাবেই নিয়েছেন তারা। ফলে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রীকে।


প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালে ’বিন শ্বাসবা কাটরে’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ ঘটে দিয়া মির্জার। তবে ২০০১ সালে ’র‍্যাহনা হ্যায় তেরে দিল মেঁ’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ভক্তদের নজরে আসেন তিনি। তুমকো না ভুল পায়েঙ্গে, ফির হেরা ফেরি, ইত্যাদি তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমা।