প্রায় ১ মাস ধরে সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ঢাকাই সিনেমার খুব পরিচিত এক মুখ আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। তবে হঠাৎ করেই তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি ঘটেছে বলে সংবাদ মাধ্যমকে এমনটা নিশ্চিত করে গুণী এই তারকার ছেলে রোশন জানান, গত ১৪ দিন ধরে আইসিইউতে জ্ঞানহীন রয়েছেন এই তারকা। কোনোভাবেই চোখ খুলছেন না। তবে চিকিৎসকেরা তার সুস্থতার জন্য সবরকম চেষ্টা করে যাচ্ছে।


তিনি বলেন, ’হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মার্চের ১৫ তারিখে বাবার দুই/বার খিঁ/চু/নি/ হয়। এরপর বাবাকে প্রথমবার আই/সিইউতে নেওয়ার তিনদিন পর ১৮ মার্চ কেবিনে স্থানান্তর করা হয়। ২১ তারিখ তিনি জ্ঞান হা/রিয়ে ফেলেন। তখন টেস্ট করে চিকিৎসকরা ব্রেনের নার্ভে ইন/ফেকশন পান। এরপর বাবাকে পুনরায় আই/সিই/উতে নেওয়া হয় এবং তখন থেকে ঘু/ম থেকে উঠছেন না। টানা ১৪ দিন বাবা চোখ খোলেননি, ওনার শরীর নড়ছে খুবই কম। এমনও দিন গিয়েছে একদমই নড়াচড়া করেননি। ’

শরৎ আরও বলেন, ’চিকিৎসকরা চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এখন দেশবাসীর কাছে বাবার জন্য দোয়া চাইনি। আল্লাহ চাইলেই বাবা আবার সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসতে পারেন। ’



প্রসঙ্গত, বিগত কয়েক বছর ধরে সিঙ্গাপুরে নিয়মিত চিকিৎ সা নিয়ে আসছিলেন আকবর হোসেন পাঠান। আর এরই জের ধরে গত ৪ মার্চ উন্নত চিকিৎসার উদ্দেশ্যে সিঙ্গাপুরে পাড়ি জমান তিনি। কিন্তু সেখানে চেকআপের পরপরই ইনফেকশন ধরা পড়লে তাতক্ষনিক তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখনো পর্যন্ত তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।