ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে অবশেষে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার অন্যতম আসামি ও জাতীয় সংসদের সাবেক ডেপুটি স্পিকার শওকত আলী (ইন্নানিল্লাহিও ইন্নানিল্লাহি রাজিউন)। মৃত্যুকাল তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। জানা যায়, আজ সোমবার (১৬ নভেম্ভর) সকাল সাড়ে ৯টায় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থা শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।
শওকত আলী কিডনি, ডায়াবেটিস, উচ্চ /রক্ত/চা/প, হৃ/দরো/গ ও নিউমো/নি/য়ায় ভুগছিলেন। এসব কারণে বেশ কিছুদিন ধরে সিএমএইচে চিকিৎসা নিতে হচ্ছিল তাকে।

অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল শওকত আলী শরীয়তপুর-২ আসন থেকে ছয় বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পাকিস্তান আমলে ১৯৬৯ সালে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে যে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা হয়েছিল, তাতে শওকত আলীকেও আসামি করা হয়।

শওকত আলী মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এবং ৭১ ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা।

এদিকে আজ সংবাদ মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জাতীয় সংসদের পরিচালক (গণসংযোগ) মো. তারিক মাহমুদ। তার এ /মৃ/ত্যু/তে/ পরিবার-পরিজনদের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। ইতিমধ্যে দলের বিভিন্ন নেতাকর্মীরা তার এ মৃত্যুতে গভির শোক প্রকাশ করে পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।