বিয়ের জন্য জমিয়ে রাখা টাকা দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে সম্প্রতি প্রশংসার জোয়ারে ভাসছেন নব এই দম্পতি। জানা যায়, পাত্র মাহসান স্বপ্ন। তিনি পেশায় পুরোদস্তুর ইউটিউবার। অপরদিকে কনে তৌহিদা অনয় একজন শখের মডেল। দীর্ঘ ৪ বছর প্রেমের সম্পর্কের পর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তারা। তবে বিয়ের এমন পরিকল্পনার ব্যাপারে জানতে চাইলে পাত্র মাহসান সংবাদ মাধ্যম জানান, বিয়ে করার পরিকল্পনা পূর্বেই ছিল। সেই অনুযায়ী আমরা টাকা পয়সা সঞ্চয় করেছিলাম। কিন্তু এখন মনে হলো সাদামাটা ভাবেও বিয়ে করা যায় আর সেই টাকা দিয়ে যদি মানুষের উপকার হয় খুব ভালো হয়। তাই বিয়ে করে ফেললাম। প্রথমে পরিবারের কেউ রাজি হচ্ছিল না, পরে রাজি হয়। ঢাকাতেই বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।’
মাহসান বিয়ের কথা জানিয়ে বলেন, ’পবিত্র রমজান মাসে শুক্রবারে সকাল ১০ টায় আমি এবং তৌহিদা অনয় বিয়ের বাঁধনে আবদ্ধ হয়েছি। আমাদের বিয়ে করার প্ল্যান ছিল গত মাসের শেষে , কিন্তু দেশের বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে আমরা এতদিন সেই কাজটি সম্পন্ন করিনি। আমার মা বাবা নেই, আত্মী স্বজনেরা ভিডিও কলে বিয়েতে অংশ নিয়েছে।’

মাহসান বলেন, ’আমাদের জন্যদোয়া করবেন আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে , প্রশাসনের অনুমতি সাপেক্ষে , ঝাকঝমক বর্জন করে অতি কম সংখ্যক মানুষ নিয়ে , মহান আল্লাহ তাআলার নামে বিয়ের কাজটি সম্পন্ন করেছি। এবং বিয়ের আগে ও পরে মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছি এবং করব ইনশাল্লাহ।’

এই তরুণ ইউটিউবার জানান, সায়েদাবাদ, কমলাপুর আরামবাগ এলাকায় দরিদ্রদের মাঝে সহায়তা করেছেন। আগামীকাল বা পরশু কিছু এলাকায় ইফতার বিতরণ করবেন।


এদিকে দেশেজুড়ে ছড়িয়ে পড়া মহামারী করোনাভাইরাসের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে অভাবগ্রস্ত মানুষের পাশে দাড়িয়ে সম্প্রতি এই নবদম্পতি মনে করিয়ে দিলেন, করোনার সংকট কালিন এ সময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর থেকে ভালো কাজ আর কি হতে পারে!