বর্তমান সময়ে ঢাকাই সিনেমা জগতের খুবই পরিচিত এক মুখ পরীমনি। অভিনয়ের পাশাপাশি তার রুপের মায়ায় বাধা পড়েছেন কোটি কোটি ভক্ত ও অনুরাগী। তবে অভিনয়ের শুরুটা প্রিয় এই তারকার জন্য ছিল একটি চ্যালেঞ্জ স্বরূপ। অনেক চড়াই-উতরাই পার করেই আজ তিনি ভক্তদের মাঝে নিজেকে পরিমণিকে হিসেবে আবিস্কার করতে পেরেছেন। এদিকে সাম্প্রতিক সময়ে দুবাইয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পরিমণি, এটা সবারই জানা।
কেননা, পরিমণির পেজ জুড়ে শুধুই দুবাই ভ্রমণের ছবি ও ভিডিওতে ঠাসা।

তবে করোনার এই সংকটকালীন দেশের দেশের বাইরে ঘোরা নিয়ে বিতর্কিত হয়েছেন পরি। তার ছবিতে নানা জনে নানা মত দিয়েছেন। কেউ কেউ বলেছেন, নিজের মত করে ঘুরবেন সেটা বুঝলাম, তবে আমাদের দেশে করোনার যে পরিস্থিতি তাতে এরকম ছবি শো করা থেকে বিরত থাকা উচিত।

এরকম মন্তব্যের পরেও থেমে নেই পরী। নানা রকমের আনন্দঘন ছবি ও ভিডিওতে রঙিন তার সোশ্যল মিডিয়ার দেয়াল। সম্প্রতি বাংলাদেশের একমাত্র অভিনেত্রী হিসেবে পরীমনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী বিজনেস ম্যাগাজিন ফোর্বস-এ জায়গা করে নিয়েছেন। ’স্বপ্নজাল’-সিনেমায় নাম কুড়ানো এই অভিনেত্রী ’এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকা’র তালিকায়ও জায়গা করে নিয়েছেন।

অন্যদিকে, দুবাই ভ্রমণ সম্পর্কে গণমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছিলেন, গত বছর করোনার কারণে দীর্ঘদিন ঘরবন্দী ছিলাম, মূলত জীবন অনেকটা থমকে ছিল। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে কাজও করেছি। আপাতত দেশে কোনও শুটিং করছি না। অবসরের এই ফাঁকে দুবাই ঘুরতে এলাম। এখানে করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। খুব শিগগিরই দেশে ফিরবো।

পরী তার একার নীতিতে হাঁটছেন। কাজ করছেন, ঘুরছেন, জীবনটাকে উপভোগ করছেন। তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঢুঁ মারলে এমনটাই বোঝা যায়।



প্রসঙ্গত, মডেলিংয়ের মধ্যদিয়ে মিডিয়া জগতে যাত্রা শুরু করেন গুণী এই তারকা। এরপর ধীরে ধীরে বিভিন্ন নৃত্যানুষ্ঠান ও ছোট পর্দায় জায়গা করে নেন তিনি। আর এরই ধারাবাহিকতার মধ্যদিয়ে ২০১৫ সালে ’ভালোবাসা সীমাহীন’ সিনেমা দিয়ে বড় পর্দায় পা রেখেই ভক্তদের মাঝেই ব্যাপক সাড়া পান তিনি।