দীর্ঘ ১ বছরেরও অধিক সময় পর অবশেষে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলের আভাস দিয়েছে প্রশাসন। এ ব্যাপারে গত ২ দিন আগেই শুক্রবার (০৩ সেপ্টেম্বর) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছে, আগামী রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলের পর শ্রেণিকক্ষে সশরীরে পাঠদানের ক্ষেত্রে তিনটি নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। আর এরই মধ্যে এবার ক্লাস নেয়ার ব্যাপারে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল জানিয়েছেন, দেশজুড়ে চলমান ভয়াবহ এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আপাতত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে একদিন করে ক্লাস নেওয়ার পরিকল্পনা করছে সরকার।
শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ইমার্জেন্সি কেয়ারের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, করোনার প্রথম থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো অনলাইন, অফলাইনে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে নিলেও তা যথেষ্ঠ ছিলো না। শিক্ষার্থীদের স্বশরীরে ক্লাসে ফিরিয়ে আনতে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দিতে যে তারিখ ঘোষণা করেছে সে অনুযায়ী ক্লাস শুরু হবে।

শিক্ষা উপমন্ত্রী আরো জানান, আপাতত একদিন করে ক্লাস নেওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও আলোচনার মাধ্যমে সময় আরো বাড়ানো যায় কিনা তা নিয়ে আলোচনা করা হবে। তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে যথাসময়ে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে নেওয়া এখন প্রধান লক্ষ্য বলে জানান তিনি।


উল্লেখ্য, দেশে প্রথমবারের মতো গত বছরের ০৮ মার্চ করোনা সংক্রমন ছড়িয়ে পড়ার পরপরই ক্রমগত ভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় একই বছরের ১৭ মার্চ থেকে প্রশাসনের নির্দেশ মোতাবেক বন্ধ হয়ে যায় দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।