গতকাল বুধবার (০২ ডিসেম্বর) হঠাৎই এলপিএল ছেড়ে পাকিস্তানে ফিরে যান শহীদ আফ্রিদি। তবে চলে যাওয়ার আগে তিনি জানিয়েছিলেন, তাৎক্ষণিকভাবে দেশে ফিরতে হবে, রয়েছে ব্যক্তিগত গুরুতর কারণ। কিন্তু এই মুহুর্তে পাকিস্তানে ফিরে যাওয়ার কি কারন থাকতে পারে, তা জানান তিনি। তবে তিনি আশ্বাস দিয়ে বলেছেন, ঝামেলা মিটিয়ে আমি আবার আমার দলের সঙ্গে যোগ দেবো। শুভকামনা।’
তখন কারও কাছেই স্পষ্ট তথ্য জানা ছিল না, ঠিক কী কারণে এমন তাড়াহুড়ো করে শ্রীলঙ্কা ছেড়ে দেশে ফিরছেন আফ্রিদি। তবে সময় গড়াতেই জানা গেছে, হাসপাতালে ভর্তি ছোট মেয়ের পাশে থাকতেই মূলত পাকিস্তান ফিরে গেছেন এ তারকা অলরাউন্ডার।

এক্ষেত্রেও পুরোপুরি তথ্য জানা যায়নি। কী হয়েছে আফ্রিদির মেয়ের কিংবা কঠিন কোনো রোগে আক্রান্ত কি না তা বিস্তারিত জানা যায়নি। লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগের টুইটার থেকে শুধু জানানো হয়েছে অসুস্থতার কথা।

হাসপাতালের বেডে মেয়ে, পাশে দাঁড়ানো বাবা আফ্রিদি, এই ছবি আপলোড করে এলপিএলের টুইটার হ্যান্ডলারে লেখা হয়েছে, ’আফ্রিদির দেশে ফেরার কারণ জানেন কি? তার মেয়ে হাসপাতালে ভর্তি। আমরা তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’


লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগের দল গল গ্ল্যাডিয়েটরস’এর অধিনায়ক দায়িত্বর ছিলেন আফ্রিদি। যেকারনে কোনো আগাম বার্তা ছাড়াই পাকিস্তানে চলে যাওয়ায় অধিনায়কত্ব নিয়ে বেশ ঝামেলায়ই পড়তে হচ্ছে গলকে। তবে পরবর্তীতে দলের একজনে আপাতত এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।